৫টি ধাপেই মিলবে ই পাসপোর্ট | ই পাসপোর্ট এখন হাতের মুঠোয় |

E passport application form ডাউনলোড করেই ঘরে বসে পাওয়া যায় ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট।  মূহুর্তের মধ্যে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করেই কিভাবে পাসপোর্ট পাবেন তা বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করবো।

বর্তমানে এমআরপি বা যন্ত্রে পাঠযোগ্য পাসপোর্টের মতো ই-পাসপোর্টের বইও একই রকমের থাকবে।

তবে যন্ত্রে পাসপোর্টের বইয়ে প্রথমে যে তথ্য সংবলিত দুইটি পাতা থাকে, ই-পাসপোর্টে তা থাকবে না। সেখানে বরং পালিমানের তৈরি একটি কার্ড ও অ্যান্টেনা থাকবে।

সেই কার্ডের ভেতরে চিপ থাকবে, যেখানে পাসপোর্ট বাহকের সব তথ্য সংরক্ষিত থাকবে।

ডাটাবেজে থাকবে পাসপোর্টধারীর তিন ধরণের ছবি, ১০ আঙ্গুলের ছাপ ও চোখের আইরিশ।

ফলে যেকোনো দেশের কর্তৃপক্ষ সহজেই ভ্রমণকারীর সম্পর্কে সব তথ্য জানতে পারবেন।

৫ (পাঁচ) টি সহজ ধাপেই মিলবে ই-পাসপোর্ট

ই-পাসপোর্ট আবেদনের জন্য আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়। ডিজিটাল যুগে ডিজিটাল দেশে কি আর সেই কষ্ট সহ্য হয়? না তা মুঠেও কাম্য নয়।

আগে পাসপোর্ট এর আবেদনের জন্য অনেক দৌড়াতে হতো পাসপোর্ট অফিসে। এখন থেকে আর কষ্ট করতে হবে না।

কাজেই এখন থেকে মাত্র ৫টি ধাপ অনুসরণ করেই আবেদন করতে পারবেন ই-পাসপোর্টের।

E-passport আবেদনের জন্য যে ৫টি সহজ ধাপ অনুসরণ করবেন

ধাপ-১ : বর্তমানে বসবাসরত জেলাতে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু হয়েছে কি না দেখুন ।

ধাপ-২ : অনলাইনে ই-পাসপোর্ট আবেদন ফরম পূরণ করুন।

ধাপ-৩ : পাসপোর্ট ফি পরিশোধ ।

ধাপ-৪ : ছবি ও ফিঙ্গার প্রিন্টের জন্য পাসপোর্টঅফিসে যোগাযোগ

ধাপ-৫ : পাসপোর্ট অফিস থেকে ই-পাসপোর্ট সংগ্রহ ।

অনলাইন ই পাসপোর্ট এর আবেদনের করতে হলে ক্লিক করুন ‘এখানে

ই-পাসপোর্টের ক্ষেত্রে ফি

৫ বছর মেয়াদী ৪৮ পাতার পাসপোর্ট স্বাভাবিক সময়ে অর্থাৎ ২১ কার্যদিবসে পেতে হলে জমা দিতে হবে ৪,০২৫ টাকা। একই পাসপোর্ট এক্সপ্রেস ডেলিভারি অর্থাৎ ১০ কর্মদিবসে পেতে লাগবে ৬,৩২৫ টাকা এবং দুই কর্ম দিবসে পেতে হলে ৮,৬২৫ টাকা জমা দিতে হবে।

১০ বছর মেয়াদী ৪৮ পাতার পাসপোর্ট ২১ কর্ম দিবসে পেতে হলে ৫,৭৫০ টাকা, ১০ কর্মদিবসে পেতে ৮,০৫০ টাকা এবং দুই কর্মদিবসে পেতে ১০,৩৫০ টাকা জমা দিতে হবে।

অন্যদিকে ৫ বছর মেয়াদী ৬৪ পাতার পাসপোর্ট ২১ দিনে পেতে ৬৩২৫ টাকা, ১০ কর্মদিবসে পেতে ৮৬২৫ টাকা এবং দুই কর্মদিবসে পেতে ১২,০৭৫ টাকা ফি জমা দিতে হবে।

একই সংখ্যক পাতার ১০ বছর মেয়াদী পাসপোর্ট ২১ কর্ম দিবসে পেতে ৮,০৫০ টাকা, ১০ কর্মদিবসে পেতে ১০,৩৫০টাকা এবং সুপার এক্সপ্রেস ডেলিভারির মাধ্যমে মাত্র দুই কর্মদিবসে পেতে হলে ফি দিতে হবে ১৩ হাজার ৮০০ টাকা।

ই-পাসপোর্ট সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানতে যোগাযোগ করতে পারেন এই লিংকে।

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন ‘এখানে

এখন থেকে লোন দিবে বিকাশ বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন- বিকাশ লোন

নিম্নের আবেদন ফর্মটি কেবলমাত্র বাংলাদেশ সচিবালয়ের পাসপোর্ট অফিসে ই-পাসপোর্টের আবেদনকারীদের জন্য প্রযোজ্য।

 

অন্যান্য পাসপোর্ট অফিসগুলিতে আবেদনের জন্য এটি ব্যবহার করা যাবে না। তালিকাভুক্তির আগে আবেদনকারীদের যোগ্যতা যাচাই করা হবে।
আপনি যদি বাংলাদেশ সচিবালয়ে আবেদনের যোগ্য হন, তবে ডাউনলোড করুন E passport application form
প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য পূরন করুন এবং তালিকাভুক্তির জন্য উপস্থাপন করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top