বিকাশ ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেলে কি করবেন?

আমরা প্রায় সবাই বিকাশ,নগদ কিংবা রকেটে লেনদেন করি। অনেক সময় বিকাশ,নগদ কিংবা রকেটে  আর্থিক লেনদেনে অসাবধানতাবশত ভুল নম্বরে টাকা চলে যায়।

মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে দ্রুত এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় আর্থিক লেনদেন করায় এই ভুলটি হয়ে থাকে।

এরকম ভুল হলে টাকা পাওয়ার কোনো সম্ভাবনাই থাকে না। এ সমস্যায় পড়ে অনেকেরই টাকা খোয়া যায়। 

যেহেতু মানুষ মাত্রই ভুল কাজেই কোম্পানিগুলা তাদের গ্রাহকদের কথা চিন্তা করে আমাদের কিছু  সিস্টেম শিখিয়েছে যা অবলম্বন করলে  টাকা পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
মোবাইলে টাকা লেনদেন এর সময় আমাদেরকে সতর্কতার সাথে লেনদেন করতে হবে।
ভালোভাবে নাম্বারটি মিলাতে হবে তারপর সঠিকভাবে যাচাই করার পর পিন দিয়ে লেন্দেন নিশ্চিত করতে হবে।
অনাকাঙ্ক্ষিত ভাবে যদি ভুল হয় তাহলে যে সিস্টেম অবলম্বন করতে হবে সেই সিস্টেম গুলা নিচে আলোচনা করা হলো।

বিকাশ ভুল নাম্বারে টাকা গেলে করনীয়

টাকা ভুল নাম্বারে গেলে ফেরত কিভাবে পাবো তার একটি নির্দেশনা দিয়েছে বিকাশ।

বিকাশ কর্তৃপক্ষ প্রথমেই যে পরামর্শ দিচ্ছে তা হলো– টাকা ভুল নম্বরে গেলে সঙ্গে সঙ্গে প্রাপককে ফোন দেবেন না।

কারণ ভুলবশত অন্য নম্বরে টাকা চলে গেলে, তা ফিরিয়ে দেয়ার মানসিকতা খুব কম লোকই রাখে। তাই তিনি টাকা উঠিয়ে ফেললে, ভুক্তভোগীর করার কিছুই থাকবে না।

সে জন্য অ্যাকাউন্ট থেকে ভুলবশত কোনো নম্বরে টাকা গেলে প্রথমে নিকটস্থ থানায় যোগাযোগ করতে বলেছে বিকাশ।

সেখানে ট্রানজেকশন নাম্বার নিয়ে জিডি করে যত দ্রুত সম্ভব সেই জিডি কপি নিয়ে বিকাশ অফিসে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

বিকাশ অফিসে অভিযোগ করার সঙ্গে সঙ্গে বিকাশ কর্মকর্তারা জিডি কপি এবং মেসেজ খতিয়ে দেখেন।

এর পর ভুলে টাকা চলে গেলে ওই ব্যক্তির বিকাশ অ্যাকাউন্ট টেম্পোরারি লক করে দেয়। যাতে তিনি কোনো টাকা তুলতে না পারেন।

এর পরক্ষণই ওই ব্যক্তির সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেন বিকাশ কর্মকর্তারা।

প্রাপক ফোন ধরে যদি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওই টাকা নিজের নয় বলে জানায়, তখন অফিস থেকেই টাকাটি নির্দিষ্ট ব্যক্তির কাছে স্থানান্তর করে দেয় বিকাশ।

আর যদি ওই ব্যক্তি নিজের টাকা বলে দাবি করেন, তা হলে ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে তাকে প্রমাণসহ অফিসে এসে অ্যাকাউন্ট ঠিক করে নিতে নির্দেশ দেয় বিকাশ কর্তৃপক্ষ।

সেই নির্দেশনা না মেনে পরবর্তী ৬ মাসে ব্যক্তি না এলে ভুক্তভোগী প্রেরকের অ্যাকাউন্টে টাকা পৌঁছে যাবে।

এর পরবর্তী ৬ মাসেও না এলে অ্যাকাউন্টটি চিরতরের জন্য অটো ডিজেবল হয়ে যাবে।

বিকাশ ভুল নাম্বারে টাকা গেলে ফেরত পাওয়া সুযোগ নয় , রকেট এবং নগদ ও সকল মোবাইল ব্যাংকিং ক্ষেত্রে ও  প্রযোজ্য। 

বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে এইসব সুবিধা উপভোগ করতে হলে অবশ্যই বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করুন।

Bkash app download

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top